শেষ জীবনে টাকার প্রতি লোভ ছিল তাপস পালের: জয়

বাংলা চলচ্চিত্র জগতের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা তাপস পালের প্রয়াণে শোকপ্রকাশ করেছে সিনেমাজগৎ থেকে রাজনৈতিক মহল। তার মধ্যে রয়েছেন রাজ্যের বি’রোধী দলের অনেকেই৷

তবে তাপসের মৃ’ত্যুতে শো’কপ্রকাশ করতে গিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করলেন অভিনেতা তথা বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়৷জয় বলেন, “খুবই দুঃ’খজনক।

উত্তম কুমারের মৃ’ত্যুর পর দাদার কীর্তি ও সাহেব ছবিতে তাপস পালের অভিনয়ে উত্তম কুমারের প্রতিচ্ছবি দেখেছিল বাংলার মানুষ। অভিনেতা হিসেবে খুবই ভালো ছিলেন। কিন্তু শেষ জীবনে টাকার প্রতি একটা লো’ভ ছিল। আর সেটাই তার জীবন গ্রাস করল।”

রোজ়ভ্যালিকাণ্ডে ২০১৬ সালের ৩০ ডিসেম্বর তাপস পালকে গ্রে’ফতার করে সিবিআই৷ তাঁর বি’রুদ্ধে অ’ভিযোগ ছিল , রোজ়ভ্যালি থেকে আর্থিকভাবে তিনি লাভবান হয়েছেন৷ দীর্ঘদিন জেলে কাটানোর পর ২০১৮ সালের ১ ফেব্রুয়ারি ওড়িশা থেকে জা’মিনে মুক্ত পান তিনি৷

শেষ বেলায় সহকর্মী, বন্ধুদের থেকে অনেকটাই দূরে একাকিত্বের মধ্যে কাটাতে হয়েছিল তাঁকে। শরীর ভে’ঙে পড়েছিল। ১ ফেব্রুয়ারি আমেরিকায়, মেয়ের কাছে যাবেন বলে স্থির করেছিলেন। কিন্তু তার আগেই তাঁকে অসু’স্থ হয়ে হা’সপাতালে ভরতি হতে হয়। সেই হা’সপাতালেই মঙ্গলবার তাঁর জীবনাবসান হয়। এ খবর দিয়েছে ভারতীয় গ’ণমাধ্যম কলকাতা২৪।

তাপস পালের মৃ’ত্যু নিয়ে ইতিমধ্যেই শাসক-বিরোধী তরজা শুরু হয়ে গেল। প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ তথা বাংলা সিনেমার একদা সুপারস্টারের ‘অসময়ে চলে যাওয়া’র জন্য কার্যত ‘তৃণমূলের রাজনীতি’-কেই দায়ী করেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

‘‘তাপস পাল অসময়ে চলে গেলেন৷ ওঁর রাজনৈতিক কেরিয়ার দেখে সাধারণ মানুষের শিক্ষা নেওয়া উচিত, কারা এখানে রাজনীতি করছেন। কারা ভাল মানুষকে খারাপ করছেন, এটা বোঝা দরকার’’।

অন্যদিকে, তাপস পালের প্রয়াণের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকেই কাঠগড়ায় তুললেন কলকাতার মেয়র তথা পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম ও সাংসদ কল্যান বন্দ্যোপাধ্যায়।

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *