জুনিয়র ও রদ্রিগোর নৈপুণ্যে রিয়াল মাদ্রিদের জয়

খেলার শুরুটি অবশ্য রিয়ালের জন্য মোটেই ভালো ছিল না। রিয়ালকে শুরুতে নিজেদের মাঠে একরকম চেপেই ধরে ব্রুজ।৯ম মিনিটে গোলেরও সুযোগ ছিল। তবে কিপার আলফুঁস আরিওলা দারুণ দক্ষতায় রক্ষা করেন দলকে।

১৫তম মিনিটে সুযোগ আসে রিয়ালের সামনে। লুকা ইয়োভিচের চেষ্টা ঠেকিয়ে স্বাগতিকদের ত্রাতা গোলরক্ষক।প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে রিয়ালের জালে বল পাঠিয়েছিল ব্রুজ। কিন্তু ভিএআর দেখে গোল দেননি রেফারি। ফলে প্রথমার্ধে কোনো গোল হয়নি।

দ্বিতীয়ার্ধের ৫৩ তম মিনিটে রদ্রিগোর চমৎকার গোলে এগিয়ে যায় রিয়াল। আলভারো ওদ্রিওসোলার ক্রসে দারুণ ভলিতে জাল খুঁজে নেন তরুণ ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড।

তবে সেই অবস্থা মাত্র দুই মিনিট স্থায়ী হয়। এরপরেই সমতা ফেরায় ব্রুজ। এমানুয়েল ডেনিসের কাছ থেকে বল পেয়ে সহজ গোল করেন হান্স ভানাকেন।

৬৪তম মিনিটে গোল দিয়ে আবার এগিয়ে যায় রিয়াল। রদ্রিগোর পায়ে লেগে বল যায় অরক্ষিত ভিনিসিউসের কাছে। খুব কাছ থেকে গোল করেন এই ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড।

৮৯তম মিনিটে ডেনিসের বাঁকানো শট একটুর জন্য জালে যায়নি।তবে যোগ করা সময়ে কাসেমিরোর কাছ থেকে বল পেয়ে আরেকটি গোল করে ব্যবধান বাড়ান মদ্রিচ।ব্রুজে জিতে ১১ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ পর্ব শেষ করল ইউরোপের অন্যতম সফল দলটি।

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *