চ লে গেলেন অভিনেতা সন্তু মুখোপাধ্যায়! রইল কিছু তাঁর জীবনের অজানা কথা

২০১৩ সাল পর্যন্ত বাংলা সিনেমায় চু টিয়ে অভিনয় করে গেছেন সন্তু মুখোপাধ্যায়। ১৯৭৫ সালে প্রখ্যাত চিত্রপরিচালক তপন সিনহা তার রাজা ছবিতে ২৪ বছর বয়সী সন্তু মুখোপাধ্যায় কে তুলে ধরলেন।

তার পরে আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি। একের পর এক ছবি। সংসার সীমান্তে, হারমোনিয়াম, গণদেবতা,দেবদাস, ব্যাপিকা বিদায়, ভালোবাসা ভালোবাসা-র মত ছবি তাঁর ঝুলিতে।

কুসুমদোলা, জলনুপুর, ইষ্টিকুটুম, অন্দরমহল এর মত টিভি সিরিয়াল এর পরিচিত মুখ ছিলেন সন্তু মুখোপাধ্যায়। বুধবার সন্ধ্যায় কলকাতার গলফগ্রীনের বাসভবন মৃ ত্যু হল এক বলিষ্ঠ অভিনেতার। ৬৯ বছর বয়েসেই জীবন শিখা নিভে গেলো অভিনেতা সন্তু মুখোপাধ্যায়ের।

ভবানীপুরের মিত্র ইন্সটিটিউশন থেকে প্রাথমিক শিক্ষার পর পদ্মপুকুর ইনস্টিটিউশন থেকে উচ্চমাধ্যমিক পাস করেন সন্তু মুখোপাধ্যায়। ছোট থেকেই অভিনয়কে নে শা করে উচ্চমাধ্যমিকের পরই পড়াশুনোর পাঠ চু কিয়ে দেন তিনি। এরপর তিনি নাচ ও রবীন্দ্র সঙ্গীতের পাঠ নেন।

মাত্র ২৪ বছর বয়সেই সরাসরি তপন সিনহার নজরে পড়েন। আর তারপর ইতিহাস। বাংলা সিনেমার স্বর্ণযুগের নায়ক উত্তম কুমার সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় কার সঙ্গে না অভিনয় করেছেন সন্তু।

তার সাধাসিধে আটপৌরে অনাড়ম্বর অভিনয় নজর কেড়ে নেয় আমজনতার তার অভিনয় দক্ষতা নজর কেড়েছিল চিত্র পরিচালকদের ফলে তরুণ মজুমদার, অরবিন্দ মুখোপাধ্যায় এর মত পরিচালকরাও তাদের ছবিতে অভিনয় করিয়েছিলেন সন্তুকে দিয়ে।

চ লে গেলেন অভিনেতা সন্তু মুখোপাধ্যায়! রইল কিছু তাঁর জীবনের অজানা কথা

২০১৩ সাল পর্যন্ত বাংলা সিনেমায় চু টিয়ে অভিনয় করে গেছেন সন্তু মুখোপাধ্যায়। এরপরই টিভি সিরিয়ালে তিনি পরিচিত মুখ হয়ে ওঠেন। জনপ্রিয় বেশ কয়েকটি টিভি সিরিয়ালে তিনি দা পটের সঙ্গে অভিনয় করে গেছেন।

গত বেশ কিছুদিন ধরে তিনি ফুসফুসের ক্যা ন্সারে আ ক্রান্ত ছিলেন। গত ফেব্রুয়ারি মাসে তীব্র শ্বাসক ষ্ট নিয়ে তাকে একটি বেসরকারি হাস পাতালে ভর্তি করা হয় সেখানে বেশ কিছুদিন তিনি গু রুত’র অ’সুস্থ অবস্থায় ভর্তি ছিলেন।

ক্যান্সা রের সঙ্গে তার তীব্র র ক্তচা’প এবং সুগারের সমস্যা ছিল। বেশ কয়েকদিন হাস পাতালে থাকার পর তিনি বাড়ি ফেরেন তবে শেষ রক্ষা হল না। মাত্র ৬৯ বছর বয়সেই তার জীবনাবসান হল।

সন্তু মুখোপাধ্যায় মৃ ত্যুতে গভীর শো’ক প্রকাশ করেছে বাংলা চলচ্চিত্র মহল তার মৃ ত্যুর খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস ছুটে যান বাড়িতে তার দুই মেয়ে অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় এবং মেকআপ ডিজাইনার অজপা মুখোপাধ্যায়কে শো’ক প্রকাশ করা হয় মুখ্যমন্ত্রীর তরফ থেকে।

শোকবিহ্বল প্রবীণ অভিনেত্রী মাধবী মুখোপাধ্যায়ও। তিনিও সন্তু মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে একাধিক ছবিতে অভিনয়ের কথা বলেন। ‘ভী’ষণই দুঃ’খজনক। দীর্ঘ দিন ধরে পরিচিত ও। অনেক দিন থেকেই অ’সুস্থ ছিল। কিন্তু হঠাৎ করে এভাবে চলে যাবে ভাবতে পারিনি।’

পরিচালক অরিন্দম শীল বললেন, “সন্তুদাও আমাদের ছেড়ে চলে গেলেন। তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করি। চোখের সামনে সব স্মৃতিগুলো ভেসে উঠছে একের পর এক। ভাল থেকো।” সন্তু মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে একই ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন বিক্রম।

তিনিও টুইট করে শোকবার্তা জ্ঞাপন করেছেন, “ভাল থেকো সন্তু কাকু। কত স্মৃতি জ’ড়িয়ে রয়েছে তোমার সঙ্গে। অনেক ভালবাসা আর প্রণাম নিও।” শো’কপ্রকাশ করলেন বিদিপ্তা চক্রবর্তীও, লিখলেন, “ভালো থেকো সন্তু দা। শান্তিতে থেকো। গত বেশ কয়েক বছর ধরে একসঙ্গে বেশ কিছু কাজ করার সুবাদে তোমার সঙ্গে কাটানো সময়গুলো মনে থাকবে।”

১৯৭৫ সাল থেকে সংসার সীমান্তে, রাজা, হারমোনিয়াম, প্রতিমা, দেবদাস, শেষ বিচার, স্বামী স্ত্রী, ন্যায় অন্যায়, মালঞ্চ, হেমন্তের পাখি, অ’গ্নিপথ, সপ্তসুর সহ বহু বাংলা চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন সন্তু মুখোপাধ্যায়।

বাংলা ছবির জগতে তিনি এক অত্যন্ত পরিচিত মুখ। বর্তমানে বহু বাংলা ধারাবাহিকেও নিয়মিত অভিনয় করে চলেছেন তিনি। তার অভিনীত ইস্টি কুটুম, কুসুমদোলা-র মতো ধারাবাহিক বেশ জনপ্রিয় ছিল টেলিদর্শকদরে অন্দরমহলে।

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *